রেকর্ডের বরপুত্র শেন ওয়ার্ণ

ক্রিকেট দুনিয়ায় শেন ওয়ার্ণকে পরিচিত করানোর কিছু নাই। এই ডান হাতি লেগ স্পিনারের ঘূর্ণির কাছে পরাস্ত হয়েছিলেন পৃথিবীর তাবৎ ব্যাটসম্যানেরা। ১৯৯৩ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে করা তার প্রথম বলটিই হয়ে আছে “বল অফ দ্যা সেঞ্চুরি”। তৎকালীন ইংলিশ ব্যাটসম্যান মাইক গ্যাটিংকে পরাস্ত করে তিনি এই অমর ইতিহাস রচনা করে গেছেন।

পুরো নাম শেন কিথ ওয়ার্ণ। এক দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ১৯৯৩ সালে। কিন্তু টেষ্ট ক্রিকেটে আসেন ১৯৯২ সালে। যদিও তার অভিষেক টেষ্টটি নিয়ে কোন সুখকর স্মৃতি নেই। মূলত আশেজে পদার্পনের পর থেকেই তিনি পূর্ণ জ্যোতিতে আত্মপ্রকাশ করেন। একটির পর একটি রেকর্ড গড়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন সীমাহীন উচ্চতায়।

পুরো নাম শেন কিথ ওয়ার্ণ। এক দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ১৯৯৩ সালে। কিন্তু টেষ্ট ক্রিকেটে আসেন ১৯৯২ সালে। যদিও তার অভিষেক টেষ্টটি নিয়ে কোন সুখকর স্মৃতি নেই। মূলত আশেজে পদার্পনের পর থেকেই তিনি পূর্ণ জ্যোতিতে আত্মপ্রকাশ করেন। একটির পর একটি রেকর্ড গড়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন সীমাহীন উচ্চতায়।

এক দিনের ক্রিকেট

  • ১০০০ রান এবং ১০০ উইকেট
  • ১০০০ রান , ৫০ উইকেট এবং ৫০ ক্যাচ
  • ১৪তম সর্বাধিক উইকেট শিকারী
  • কোন সিরিজে ১৩তম সর্বাধিক উইকেট শিকারী
  • এক বছরে ৩য় সর্বাধিক উইকেট শিকারী
  • একটি নির্দিষ্ট মাঠের সর্বাধিক উইকেট শিকারী হিসেবে ৪৮ তম
  • দশম বোলার হিসাবে চারটি উইকেট শিকারী
  • টানা তিন ম্যাচে চার উইকেট করে পাওয়া খেলোয়াড়দের তালিকায় প্রথম
  • ২২তম খেলোয়াড় হিসেবে সর্বাধিক বল করেছেন
  • ৭ম খেলোয়াড় হিসেবে দ্রুততম ৫০ উইকেট
  • ১৫তম খেলোয়াড় হিসেবে দ্রুততম ১০০ উইকেট
  • ১২তম খেলোয়াড় হিসেবে দ্রুততম ১৫০ উইকেট
  • ৫ম খেলোয়াড় হিসেবে দ্রুততম ২০০ উইকেট
  • ৫ম খেলোয়াড় হিসেবে দ্রুততম ২৫০ উইকেট
  • সর্বাধিক রান করা খেলোয়াড় যিনি একটি সেঞ্চুরিও করেন নি

টেষ্ট ক্রিকেট

  • দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী
  • এক বছরে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি
  • এক ইনিংসে ২য় সর্বোচ্চ পাঁচ উইকেট শিকারি
  • এক ইনিংসে ২য় সর্বোচ্চ দশ উইকেট শিকারি
  • ধারাবাহিকভাবে প্রতি ম্যাচে ৫ উইকেট পাওয়াদের মধ্যে ৫ম
  • ধারাবাহিকভাবে প্রতি ম্যাচে ১০ উইকেট পাওয়াদের মধ্যে ৪র্থ
  • সবচেয়ে বেশি বল করা খেলোয়াড়দের তালিকায় ৩য়
  • দ্রুততম ৭০০ উইকেট শিকারদের তালিকায় ২য়
  • ৩য় সর্বোচ্চ ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ এওয়ার্ড প্রাপ্ত

এখানে মনে রাখতে হবে, অস্ট্রেলিয়ার আকাশে যখন শেন ওয়ার্ন রাজত্ব করছিলেন, তখন একই মহিমায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছিলেন ম্যাক গ্রাথ, গিলেস্পি, রাইফেল, ডেনিস লিলি, স্টিভ ওয়াহ, ব্রেট লি সহ আরো অনেক জগৎবিখ্যাত খেলোয়াডেরা। তখন স্পিনার হিসেবে অনেক দেরিতে বল করার সুযোগ দেওয়া হত। ততক্ষনে ম্যাকগ্রা-গিলেস্পিরা প্রতিপক্ষের ব্যাটিং লাইন আপ ধ্বংস করে দিয়েছে। বাকি যে কয়টা উইকেট থাকে তা নিয়েই শেন ওয়ার্ণকে সন্তুষ্ট থাকতে হত।

শেন ওয়ার্নের সময়কালে আর একজন স্পিনার ছিলেন ম্যাকগিল। যার কাছে শেন ওয়ার্ন একটি অভিশাপের নাম। ব্যক্তিগত ভাবে অত্যন্ত উচুমানের খেলোয়াড় হওয়া সত্ত্বেও জাতীয় দলে সুযোগ পেতেন কেবল ওয়ার্নের অনুপস্থিতিতে।

ক্যারিয়ারে নানা সময়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন এই লেগ স্পিনার। কখনো মাদক, কখনো নারী কেলেঙ্কারী, আবার কখনো বর্নবাদী মন্তব্য যেন পিছুই ছাড়ছিল না তার। তবুও তিনি জীবনকে উপভোগ করে গেছেন। সমৃদ্ধ করে গেছেন ক্রিকেটকে, সমৃদ্ধ করে গেছেন পৃথিবীকে।

Spread the love